ঔষধি মশলা বিষয়ক কিছু পরামর্শ

প্রকৃতি – প্রাকৃতিক নিরাময় কেন্দ্র

সুষম খাদ্য কি?

পৃথিবীর সমস্ত দেশে আবহাওয়া অনুযায়ী নানা রকম শাক-সবজি, ফলমুল উৎপন্ন হয়ে থাকে এবং যে দেশের মাটিতে আপনি বাস করেন সেই দেশের মাটিতে যে ঋতুতে যে ফসল জন্মায় সেটিই আপনার জন্য সুষম খাদ্য। খাদ্য ঘাটতি পূরণে কোন সাপ্লিমেন্ট ও কারখানায় উৎপাদিত ভিটামিন মিনারেলের প্রয়োজন পরে না।

দারুচিনি শুধু মসলা নয়, এর বেশি কিছু

দারুচিনি হলো এই গ্রহের সবচেয়ে বেশি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমৃদ্ধ ভেষজ। এর মিষ্টি স্বাদ ও সুন্দর সুবাসের জন্য শতাব্দীর পর শতাব্দীর ধরে প্রায় প্রতিটি সংস্কৃতিতেই আদৃত হয়ে আসছে। দারুচিনিতে রক্তের শর্করা রোধ করাসহ উন্নত অসাধারণ ঔষধি গুণাবলি রয়েছে, যা প্রদাহ কমাতে ও স্নায়বিক...

আদা সকল রোগ নিরাময়ে দাদা

কথায় বলে ‘আদা সকল রোগ নিরাময়ে দাদা’। যার অর্থ আমাদের শরীরে সব রোগ নিরাময়ের জন্য আদা যথেষ্ট ভূমিকা রাখতে সক্ষম। আদায় রয়েছে পটাশিয়াম, আয়রণ, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, সোডিয়াম, জিংক, ম্যাঙ্গানিজ, ভিটামিন এ, বি৬, ই ও সি এবং অ্যান্টি–ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট ও...

দুধ চায়ের জায়গায় খাওয়া শুরু করুন টার্মারিক টি!

সারা বিশ্বের মধ্যে যে কটা দেশে প্রথম বারের জন্য চা পানের রেওয়াজ শুরু হয়েছিল তার মধ্যে এদেশের স্থান ছিল একেবারে উপরের দিকে। কারণ চা নামক যে একটা পানীয় রয়েছে সে নিয়ে প্রচার শুরু হয়েছিল ভারতের মাটি থেকেই। তাই প্রতিটি ভারতীয়ের সঙ্গেই…

দারুচিনি শুধু মসলা নয়, এর বেশি কিছু

দারুচিনি হলো এই গ্রহের সবচেয়ে বেশি অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমৃদ্ধ ভেষজ। এর মিষ্টি স্বাদ ও সুন্দর সুবাসের জন্য শতাব্দীর পর শতাব্দীর ধরে প্রায় প্রতিটি সংস্কৃতিতেই আদৃত হয়ে আসছে। দারুচিনিতে রক্তের শর্করা রোধ করাসহ উন্নত অসাধারণ ঔষধি গুণাবলি রয়েছে, যা প্রদাহ কমাতে ও স্নায়বিক...

read more

আদা সকল রোগ নিরাময়ে দাদা

কথায় বলে ‘আদা সকল রোগ নিরাময়ে দাদা’। যার অর্থ আমাদের শরীরে সব রোগ নিরাময়ের জন্য আদা যথেষ্ট ভূমিকা রাখতে সক্ষম। আদায় রয়েছে পটাশিয়াম, আয়রণ, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, সোডিয়াম, জিংক, ম্যাঙ্গানিজ, ভিটামিন এ, বি৬, ই ও সি এবং অ্যান্টি–ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট ও...

read more

দুধ চায়ের জায়গায় খাওয়া শুরু করুন টার্মারিক টি!

সারা বিশ্বের মধ্যে যে কটা দেশে প্রথম বারের জন্য চা পানের রেওয়াজ শুরু হয়েছিল তার মধ্যে এদেশের স্থান ছিল একেবারে উপরের দিকে। কারণ চা নামক যে একটা পানীয় রয়েছে সে নিয়ে প্রচার শুরু হয়েছিল ভারতের মাটি থেকেই। তাই প্রতিটি ভারতীয়ের সঙ্গেই…

read more

সুস্বাস্থের জন্য রান্না ঘর

আমাদের স্বাস্থের জন্য রান্নাঘর অতি প্রয়োজনীয় বিষয়, এই রান্না ঘর দ্বারা অসুস্থ হতে পারেন, আবার এই রান্না ঘর দিয়েই সুস্থ হতে পারেন। কিভাবে হবেন ?এই পর্বে আজ থাকছে আদার গুণাগুণ।...

read more

তেজপাতার ভেষজ গুণ

যাদের কফ হয় তাদের জন্য তেজপাতা উপকারী। তেজপাতা শুধু রান্নাতেই ব্যবহার করা হয়। এই পাতার আছে অনেক রোগের আরোগ্য গুণ। একে বলা হয় তেজপাতা উষ্ণবীর্য (কড়া), পাচক (খাবার হজম করায়), আগ্নেয় বা খিদে বাড়িয়ে দেয়, মুখশুদ্ধি করে, কফ, বায়ু, অর্শ, সর্দি, বমিভাব, অরুচি ও...

read more

জোয়ান খাওয়ার উপকারিতা

জোয়ান বা যোয়ান খাবারকে সহজে হজম করায়। ঘরোয়া ওষুধের মধ্যে যোয়ানের ব্যবহার আমাদের দেশে প্রাচীন কাল থেকেই হয়ে আসছে। যোয়ানের সংস্কৃত নাম যমানী। যোয়ান খাবার হজম করায়, রুচি উৎপন্ন করে, তীক্ষ্ণ, গরম, হালকা খিদে বাড়িয়ে দেয়, তেতো আর পিত্ত উৎপন্ন করে। শুক্র শূল,...

read more

দারচিনি খাওয়ার নানা উপকারিতা

দারচিনি বা দারুচিনি (বৈজ্ঞানিক নাম:Cinnamomum verum) কণ্ঠশুদ্ধি করে। সুগন্ধ ও স্বাদ বৃদ্ধি করবার জন্যে গরম মশলায় দারচিনির ব্যবহার প্রাচীনকাল থেকেই হয়ে আসছে। দারচিনি যেমন মুখশুদ্ধি করে তেমনই কণ্ঠশুদ্ধিও করে। এটা খেলে মুখ সুবাসিতও হয়। শুধু মশলা বা মুখশুদ্ধি হিসেবেই...

read more

জায়ফল খাওয়ার গুনাগুণ

জায়ফল খেলে অরুচি দুর হয়। জায়ফল সুগন্ধযুক্ত গরম মশলায় ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও ব্যবহার করা হয় নানা রকম মিষ্টি বা রান্নায়। ঘরোয়া ওষুধ হিসেবেও জায়ফল ব্যবহার করা। চিকিৎসকদের মতে, জায়ফল সুগন্ধি, পাচক (খাবার জুম করায়), উষ্ণ, বায়ুনাশক, খিচুনি বন্ধ করে। অল্প মাত্রায়...

read more

জয়ত্রি বা জৈত্রীর ভেষজ গুণ

জয়ত্রী বা জয়িত্রি বা জৈত্রী বা জায়ফল (বৈজ্ঞানিক নাম: Myristica fragrans) রং ফর্সা করে। জায়ফলের পাপড়ি বা আবরণটি জৈত্রী নামে পরিচিত। পায়েস, মিষ্টি ইত্যাদি খাবার সুগন্ধযুক্ত করতে জৈত্রী ব্যবহার করা হয়। গরম মশলার মধ্যে এবং মাংস, কালিয়া, বিরিয়ানি, পোলাও ইত্যাদি...

read more

লবঙ্গ খাওয়ার উপকারিতা

লবঙ্গ কাশিতে অনেক উপকার দেয়। গরম মশলায় লবঙ্গের ব্যবহারের কথা সকলেরই জানা আছে। লবঙ্গ মশলাকে এবং লবঙ্গ মেশানো হয় সেই এমন কোনো আহার্য বস্তুর মধ্যে সুগন্ধ ছড়ায়। পানের খিলি মুড়তে তও আগে লবঙ্গ ব্যহার করা হত, এখন লবঙ্গর দাম বেড়ে যাওয়ার জন্যে সেটা আর সম্ভব হয় না।...

read more

এলাচের উপকারিতা

ছোট এলাচ (বৈজ্ঞানিক নাম: Elettaria cardamomum) মন প্রফুল্ল রাখে। প্রাচীন কাল থেকেই মুখ সুগন্ধিত করবার জন্যে ছোট এলাচ খাওয়া হয়। অত্যন্ত সুগন্ধী হওয়ার জন্যে ছোট এলাচ খেলে মুখের দুর্গন্ধ দূর হয়। পানের মধ্যে এলাচ দিয়ে খাওয়া হয়। এছাড়া খাওয়ার পরে মুখশুদ্ধি হিসেবেও...

read more

আদার রসের বহুবিধ উপকারিতা ও ব্যবহার

আদা বা আর্দ্রক (বৈজ্ঞানিক নাম: Zingiber officinale) হচ্ছে জিঞ্জিবারাসি পরিবারের জিঞ্জিবার গণের ছোট রাইজোমসমৃদ্ধ বীরুৎ। এদের রাইজোম সুগন্ধী, ঝাঁঝালো স্বাদ, ভিতরের রং ফিকে হলুদ। আদা গাছের পত্রল-কান্ড প্রায় ০.৫- ১.০ মিটার লম্বা। আদার রস রোগ সারাতে বহুবিধ কাজে লাগে। আদার...

read more

পেয়াজের উপকারিতা

পেয়াজ লিলিয়াসি পরিবারের এলিয়াম গণের বর্ষজীবী কন্দমূলের গাছ। এটি বেশ রসালো। সবজি হিসাবে খাওয়া হয়। এর বোটানিক্যাল নাম Allium cepa Linn. একটি পেঁয়াজে আছে নানা ঔষধি গুণ। পেয়াজ সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুনপেয়াজ সারা দুনিয়ায় ব্যবহৃত জনপ্রিয় সবজি মসলা ঔষধি...

read more

রসুন খাওয়ার উপকারিতা

রসুন লিলিয়াসি পরিবারের এলিয়াম গণের বর্ষজীবী উদ্ভিদ। ভারত বা তার আশেপাশে নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে চাষ হয়, তা ছাড়া পৃথিবীর অন্যান্য মহাদেশেও এর চাষ হয়ে থাকে। এর বোটানিক্যাল নাম Allium sativum Linn. নিম্নে রসুনের ভেষজ উপকারিতা উল্লেখ করা হলো। [১] রসুন সর্বত্রই সহজে পাওয়া...

read more

মেথির গুণ :

বাত ব্যাধিতে মেথি (বৈজ্ঞানিক নাম: Trigonella foenum-graecum) খাওয়া শ্রেষ্ঠ। প্রতিদিনের ব্যবহারে সুলভ মেথি দানার বা মেথির আছে অনেক গুণ। মেথি ফোড়ন দিয়ে রান্না করা তরকারি, মেথির শাক এমনকী চচ্চড়ির পাঁচফোড়নে মেথির সুগন্ধ সকলেরই প্রিয়। কিন্তু মেথির গুণপনার কথা হয়তো...

read more

গোল মরিচের ভেষজ গুণাগুণ

গোল মরিচ কালো গোল মরিচ (বৈজ্ঞানিক নাম: Piper nigrum) একটি লতানো উদ্ভিদ। এটি মসলা হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও প্রাচীনকাল থেকেই এদের আয়ুর্বেদিক ব্যবহার দেখা যায়। মরিচ প্রধানত কাজ করে রসবহস্রোতে এবং অগ্ন্যাশয়ে বা পচ্যমানাশয়ে। প্রতিদিনের রান্নায় গোলমরিচ ব্যবহার করা...

read more

প্রকৃতি - প্রাকৃতিক নিরাময় কেন্দ্র

প্রকৃতি’র কিছু কথা

পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশনের গবেষণা থেকে একটি ভয়ংকর তথ্য পাওয়া গেছে। তাহল- “বাংলাদেশে প্রতিবছর ৬৪ লাখ মানুষ চিকিৎসা খরচ মিটিয়ে দরিদ্র হয়ে পড়ে”। ‘প্রকৃতি’ মনে করে মানুষের বেঁচে থাকার জন্য বিষমুক্ত খাদ্য এবং অসুখ হলে পার্শ্বপতিক্রিয়া বিহীন ঔষধই দিতে পারে মানুষের বেঁচে থাকার মূল স্বাদ। সেক্ষেত্রে খাদ্য-পথ্য ও আকুপ্রেসারই মূল হাতিয়ার হতে পারে।

প্রকৃতি’র ঠিকানা

অফিস: ২৯, বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ (৩য় তলা),  ঢাকা – ১০০০, বাংলাদেশ।

যেকোন প্রয়োজনে: +880170-935544

বিশেষ প্রয়োজনে: +8801611-010011

ইমেইল করুন: alam.lalon@gmail.com