আপনি কি অহেতুক ভয় পান? সহজেই ভয় দূর করার উপায় জেনে নিন।

আপনি কি অহেতুক ভয় পান? সহজেই ভয় দূর করার উপায় জেনে নিন।

ভয় দূর করার উপায় খুঁজতে গিয়ে আমরা কত কি-ই না করি। মানুষ হিসেবে আমাদের কোন না কোন ক্ষেত্রে কমতি থাকবে এটাই স্বাভাবিক। সুখ, দুঃখ, হাসি, কান্নার মতো ভয়ও আমাদের অতি প্রাকৃতিক একটি বিষয়। তবে কখনও কখনও আমরা অহেতুক ভয় পাই। আমার ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেজে সহজে ভয় দূর করার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেছিলাম। দুঃখজনক হলেও সত্য বেশিরভাগ মানুষই শুধু ঔষধ খোঁজে, যেকোন সমস্যায় তারা ঔষধের বাইরে কিছু চিন্তাও করতে পারে না। কিন্তু অহেতুক ভয় দূর করার সহজ উপায়ে কোন ঔষধই সত্যিকার অর্থে কাজ করে না।

Ankle Incline Slant Board (Plastic) | সায়েটিকা ও হিপ পেইন রিমুভার

ভয় দূর করার উপায়

ভয় দূর করার উপায়

আমি ন্যাচারোপ্যাথি ও আকুপ্রেসার বিশেষজ্ঞ, তাই সহজ উপায়ে ভয় দূর করতে ন্যাচারোপ্যাথি ও আকুপ্রেসার পয়েন্ট নিয়েই আলোচনা করে থাকি। তবে আশার সংবাদ হচ্ছে, বর্তমানে অনেকেই বিভিন্ন সমস্যার আকুপ্রেসার পয়েন্টে আকুুপ্রেসার করে সমাধান পেয়েছে এবং তারা আমাকে কখনও কল করে, কখনওবা এসএমএস করে ধন্যবাদ জানাচ্ছে। আবার কেউ কেউ তো সরাসরি কমেন্ট করেই ধন্যবাদ জানাচ্ছে। সময়ের স্বল্পতায় সবার মন্তব্য আসলে পাঠকদের সামনে তুলে ধরা সম্ভব হয়ে ওঠে না।

আপনাদের যাদের অহেতুক ভয় পাওয়া জনিত সমস্যা রয়েছে, তারা আকুপ্রেসার ট্রাই করে দেখতে পারেন। আপনি যদি সঠিক উপায়ে আকুপ্রেসার করতে পারেন, আপনার অহেতুক ভয় পাওয়ার সমস্যা শতভাগ সমাধান হয়ে যাবে। আপনার অহেতুক ভয় পাওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা করার কোন কারণ নাই, নিয়মিত আকুপ্রেসার করুন এবং ভিডিওতে দেয়া আমার পরামর্শগুলো মেনে চলুন। আপনার ভয় সহজ উপায়েই দূর হয়ে যাবে।

সহজ উপায়ে ভয় দূর করার উপায় জেনে নিন (ভিডিও): https://youtu.be/JbImB43fjPI

ACUPRESSURE দ্বারা কোমরের অসহ্য ব্যথা থেকে মুক্তি

ACUPRESSURE দ্বারা কোমরের অসহ্য ব্যথা থেকে মুক্তি

লোকটির নাম ফয়েজ আহমেদ, কুয়েত প্রবাসী। সেখানে এসির কাজ করেন, পেশাগত কারণে তার ভারী জিনিষ তুলতে হয়, এবং 12 থেকে 14 ঘন্টা কাজ করতে হয়। এই হাঢ়ভাঙ্গা খাটুনির মধ্যে হঠাৎ তিনি টের পান তার কোমর ব্যথা হচ্ছে, আর কোন কিছু তুলতে পারছেনা।
এমন অবস্থায় কুয়েতের হাসপাতালে দেখালে সেখানে ব্যথার ঔষধ দেয়, ব্যথার ঔষধ খেলে ভাল থাকে কিন্তু ঔষধ ছেড়ে দিলে আবার ব্যথা বেড়ে যায়। এভাবে 7 মাস চিকিৎসা থাকার পর তার ডান পা অবশ হতে শুরু করে, সে আবার হাসপাতালে গেলে MRI রিপোর্টে L4 – L5 ডিক্সে ক্ষয় জণিত সমস্যা বলে ফিজিওথেরাপী দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।
কিন্তু একমাস থেরাপী নেওয়ার পরেও কোন উপকার না হওয়ায় ফয়েজ হতাশ হয়ে পরেন। 
এরই মধ্যে একজন বাংলাদেশি যে, তার মায়ের চিকিৎসা আমার কাছে আকুপ্রেসার করিয়ে মায়ের সুস্থতা কথা বলেন। ফয়েজ সেই কথা শুনে কুয়েত থেকে ছুটি নিয়ে আমার কাছে আসেন।
অশেষ রহমত যে ফয়েজ আহমেদ 7 দিন আকুপ্রেসার থেরাপী ও পরামর্শে নিয়ে কোমড় ব্যথা এবং পায়ের অবশতা দূর হয়ে যায়।

ফয়েজ আহমেদ প্রকৃতিক চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্যতার প্রথম ধাপ পার করলেন। আগামী দিনগুলি প্রকৃতির সাথে থাকলে তিনি আর এই কোমড় জণিত সমস্যায় পরবে না।

তিনি সুস্থ্যতা নিয়ে বাড়িতে ছুটি কাটাচ্ছেন।

আকুপ্রেসারে ডায়বেটিস থেকে মুক্তি।

আকুপ্রেসারে ডায়বেটিস থেকে মুক্তি।

শশাঙ্ক চক্রবর্তী, বারদি, লোকনাথ বাবার আশ্রমের পুরোহিত। তিনি ৫ বছর ধরে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত, ওষুধ সেবন করতেন।
আমার YouTube Channel (alamgir alam) দেখে সেখানে দেয়া আকুপ্রেসার প্রয়োগ করেন। নিয়মিত আকুপ্রেসার করে দুই মাসের মধ্যে ডায়াবেটিস নাই। আজ পপুলার টেস্ট করে আমাকে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য অফিসে এসেছেন।
শশাঙ্ক দাদার মতো মানুষ আমার দেয়া আকুপ্রেসার সাজেশন মেনে সুস্থ থাকতে পারেন কোন প্রকারের ওষুধ ছাড়া