পা ফোলা ও ব্যথায় অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে ভোগেন। অফিসে দীর্ঘক্ষণ বসে কাজ করার ফলে কারও কারও পা ফুলে যেতে পারে। এছাড়া দূরে ভ্রমণ করলে অনেকক্ষণ বসে থাকতে হয়, যার কারণে এ ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আমাদের শরীরের টিস্যুগুলোতে পানি জমে গেলে পা ফুলে যায়। ঘরোয়া কিছু উপায় অবলম্বন করলে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

সেক পদ্ধতি

পা ফুলে গেলে কখনও কখনও ব্যথা হতে পারে। এই অস্বস্তি দূর করতে হলে কুসুম গরম ও ঠান্ডা পানি দিয়ে নিয়মিত পায়ে সেক দিকে পারেন।

দুটি গামলার একটিতে কুসুম গরম পানি এবং আরেকটিতে ঠান্ডা পানি নিতে হবে। প্রথমে গরম পানিতে দুই পা ভিজিয়ে রাখতে হবে ৩ থেকে ৪ মিনিট। এরপর ১ মিনিট ঠান্ডা পানিতে রাখতে হবে। এইভাবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর্যায়ক্রমে ঠান্ডা ও গরম পানিতে পা ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর তোয়ালে দিয়ে পা মুছে নিতে হবে। অলিভ অয়েল লাগিয়ে ৫ মিনিট ধীরে ধীরে মাসাজ করতে হবে। প্রতিদিন গোসল করার পর এভাবে সেক নিলে পা ফোলা ও ব্যথা কমে যাবে।

বিকল্প ও সহজ পদ্ধতি

সকালে খালি পেটে এককাপ ঘন কালো চা (দুধ চিনি ছাড়া) পান করুন। দেখবেন পা ফোলা কমে যাবে। চা খেতে অনেক তিতা লাগতে পারে কিন্তু তবুও পান করুন, নিয়মিত ১৫ দিন পান করতে পারলে জটিল সমস্যাও সমাধান হবে।